চকবাজারে মসজিদে জুমার মুসল্লিদের কান্না!


আগুনে পুড়ে মারা যাওয়া নিহতের জন্য দোয়া করেছে চুড়িহাট্টায় এলাকার প্রতিবেশীরা। শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) চুড়িহাট্টা শাহী মসজিদে জুমার নামাজের এই দোয়া প্রার্থনা অনুষ্ঠিত। আর মোনাজাতের সময় কান্নায় ভেঙে পড়েন মুসল্লিরা। মোনাজাতে অংশ নেন ঢাকা-৭ আসনের এমপি হাজী মোহাম্মদ সেলিম। নামাজ শুরুর আগে এমপি হাজী সেলিম মুখপাত্রের মাধ্যমে এলাকাবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, আমার আদেশ ও অনুরোধ, আপনারা কেউ নিজের বাসায় কেমিক্যালের গোডাউন ভাড়া দেবেন না। সেই সঙ্গে চুড়িহাট্টাবাসী নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন।

জুমার নামাজের মোনাজাতে চুড়িহাট্টা শাহী মসজিদের ইমাম বলেন, হে আল্লাহ যারা এ ঘটনায় পৃথিবী ছেড়ে চলে গেছেন তাদের জান্নাতুল ফেরদৌস দান করুন। তাদের পরিবারকে শোক সহ্য করে ধৈর্য ধরার ক্ষমতা দান করুন। গত বুধবার রাতে পুরান ঢাকার চকবাজারের চুড়িহাট্টার ৬৪ নম্বর ওয়াহেদ ম্যানশনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ফায়ার সার্ভিসের ৩৭টি ইউনিটের প্রায় ২০০ কর্মী স্থানীয়দের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ওই ঘটনায় মোট ৬৭ জন নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে জেলা প্রশাসন। আহত ও দগ্ধ অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৪১ জন। তাদের মধ্যে দু’জনকে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্র আইসিইউতে রাখা হয়েছে।

বাকিদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক। অগ্নিকাণ্ডের কারণ উদঘাটনসহ দুর্ঘটনার সার্বিক বিষয় তদন্তের জন্য সুরক্ষাসেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (অগ্নি অনুবিভাগ) প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তীকে আহ্বায়ক করে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। কমিটিকে সাতদিনের মধ্যে রিপোর্ট প্রধান করতে বলা হয়েছে। এছাড়া দোষীদের চিহ্নিত করতে ১১ সদস্যের কমিটি গঠন করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি)। অগ্নিকাণ্ডের কারণ অনুসন্ধান, প্রাথমিক ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণ এবং অগ্নি দুর্ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে সুপারিশ প্রদানের জন্য শিল্প মন্ত্রণালয় ১২ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।

‘সরকারিকরণ হচ্ছে এভ্রিল ফাউন্ডেশন’
বিয়ে ও ডিভোর্সের তথ্য গোপনের অভিযোগে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ-২০১৭ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়েও মুকুট হারিয়ে আলোচিত হয়েছিলেন জান্নাতুল নাঈম এভ্রিল। যে বাল্য বিয়ের জন্য সাফল্য পেয়েও তা হাতছাড়া হয়েছে বিতর্কিত এভ্রিলের। এবার সেই বাল্য বিয়ে বন্ধে কাজ শুরু করেছেন তিনি। মুকুট হারানোর পর নিজের নামে ‘এভ্রিল ফাউন্ডেশন’ নামে চ্যারিটি ফাউন্ডেশন গঠন করেছেন। ইতোমধ্যে ফাউন্ডেশনটির জন্য একটি টিমও তৈরি করেছেন এভ্রিল। সারা দেশে বাল্য বিয়ে বন্ধে কাজ করছে সংগঠনটির ২১ জন নারী সদস্য।

এভ্রিল বলেন, ‘একটি ভুলের জন্য মানুষকে অনেক কিছু হারাতে হয়েছে। তাই বাল্য বিয়ে বন্ধ করতে চ্যারিটি ফাউন্ডেশন করেছি। গ্রামে গ্রামে গিয়ে মানুষকে বাল্য বিয়ের বিরুদ্ধে সচেতন করবে সংগঠনটি। এভ্রিল আরও বলেন, ‘শুধু বাল্য বিয়েই নয়, নারীর ক্ষমতায়নেও আমার সংগঠন কাজ করবে। এ জন্য আমার আয়ের ৭৫ ভাগ আমি এ চ্যারিটিতে দেব। সারা দেশে ভলান্টিয়ার হয়ে কাজ করছে নারীরা। তারা অবহেলিত, নির্যাতিত নারীর পাশে দাঁড়াবেন। তিনি বলেন, ‘আমি তথ্য পেয়েছি আমার ফাউন্ডেশনটি সরকারিকরণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। খুব দ্রুতই হয়তো সেটি করা হবে।

ডেটিং গুঞ্জন: যুবরাজ বিষয়ে মুখ খুললেন প্রীতি!
আইপিএলে ‘কিংস্ ইলেভেন পঞ্জাব’-এর হয়ে মাঠে নামতে দেখা গেছে ভারতীয় দলের অন্যতম নক্ষত্র যুবরাজ সিংহকে। তখন থেকেই তাঁর এবং সেই দলের মালিক, অভিনেত্রী তথা প্রযোজক প্রীতি জিন্তার সম্পর্ক নিয়ে বহু গুঞ্জন শোনা গেছে। এখনও তা অব্যাহত। প্রীতি এবারও মুখ খুলেছেন সে ব্যাপারে। তিনি বলেছেন, তাঁর এবং যুবরাজের মধ্যে কোনও সম্পর্ক নেই একথা বারবার বলা সত্ত্বেও সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট টুইটারে আবারও এই সংক্রান্ত আলোচনা দেখে তিনি বিরক্ত।

এছাড়াও তাঁর এবং যুবির সম্পর্ক নিয়ে কথা বলতে গিয়ে তাঁকে ‘সেক্সি’ আখ্যা দিয়েছেন তিনি। তিনি এদিন টুইটারে বলেছেন, কাজের জায়গায় এই ধরণের শব্দকে মোটেই ভালো চোখে দেখেননা তিনি। এদিন সংবাদ মাধ্যমের ওপরেও তোপ দেগেছেন অভিনেত্রী। একটি বিশেষ সংবাদ মাধ্যম(ইন্টারন্যাশানাল বিজনেস টাইমস্)-কে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেছেন, আর কতবার বললে বিশ্বাস হবে যে যুবরাজের সঙ্গে কোনওদিন ‘ডেট’-এ যাননি তিনি, তাছাড়া এরকম ইচ্ছেও তাঁর নেই। ২০১৪ তে তাঁকে শেষবার পর্দা য় দেখা গিয়েছিল ‘হ্যাপি এন্ডিং’ সিনেমায়।