Home / Uncategorized / বিয়ের আগেই মোটরসাইকেলে প্রাণ গেল বরের, গুড বাই লিখে তরুণীর আত্মহত্যা !

বিয়ের আগেই মোটরসাইকেলে প্রাণ গেল বরের, গুড বাই লিখে তরুণীর আত্মহত্যা !

আসছে ঈদুল-আজহার পরই বিয়ের কথা ছিল তাদের। দুই পরিবারই বিয়ের আয়োজনের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। কিন্তু একটি দুর্ঘটনায় সব শেষ।মঙ্গলবার (৯ জুলাই) রাতে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় আলী আকবরের (রাহুল)। হবু বরের মৃত্যু মেনে নিতে না পেরে হোয়াটসঅ্যাপে বন্ধুদের ‘গুড বাই’ জানিয়ে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে আত্মহত্যা করেন জিনাত (২০)।বুধবার (১০ জুলাই) ভারতের কোলকাতার বন্দর এলাকার একবালপুরে এ ঘটনা ঘটে। জিনাত নিজ ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আত্মহত্যার ঘটনায় তদন্তে নেমে আলী আকবরের কথা জানতে পারে পুলিশ। দুই বছর আগে জিনাত এবং আলীর মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। মাধ্যমিক পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়ার পর আর পড়াশোনা করেননি জিনাত। কয়েক মাস আগেই পছন্দের মানুষ আলী আকবরের সঙ্গে তার বিয়ের কথা পাকাপাকি হয়। কথা ছিল, ঈদুল-আজহার পর তাদের বিয়ে হবে।এরই মধ্যে এক দুর্ঘটনা ঘটে যায়। রোববার (৭ জুলাই) রাতে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফেরার সময় সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর জখম হয় আলী। এ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করার পর বুধবার রাতে তার মৃত্যু হয়।

পুলিশ বলছে, বুধবার রাতে আলীর এক বন্ধুকে ফোন করে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত হয় জিনাত। এর পর শাহিন নামে এক বান্ধবীকে হোয়াটসঅ্যাপ করেন। জিনাত তাকে লেখেন, ‘রাহুলের মৃত্যুর পর আমার বেঁচে থাকার কী মানে? আমিও মরব।’ বন্ধুরা তাকে বোঝানোর চেষ্টা করে। কিন্তু পারেনি। গতকাল রাতে আরেক বান্ধবীকে হোয়াটসঅ্যাপে ‘গুড বাই’ লিখে আত্মহত্যা করেন জিনাত।

‘আগামী দুই বছরের মধ্যে ঢাকাকে রিকশামুক্ত করা হবে’ আগামী দুই বছরের মধ্যে ঢাকা শহরকে রিকশামুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, ঢাকা শহরে যত সড়ক আছে সেগুলো একত্রিত করলে ২০ হাজার কিলোমিটার হয়। কিন্তু আমরা রিকশা বন্ধ করতে পেরেছি মাত্র ১০ কিলোমিটার সড়কে। আমাদের পরিকল্পনা আছে দুই বছরের মধ্যে ঢাকাকে রিকশাশূন্য করার।

মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে সুশৃঙ্খল গণপরিবহন ব্যবস্থা গড়ে তোলার লক্ষ্যে আয়োজিত এক আন্তর্জাতিক অভিজ্ঞতা বিনিময় বিষয়ক কর্মশালার সমাপনী পর্বে তিনি এসব কথা বলেন।মেয়র আতিকুল ইসলাম আরো বলেন, আমাদের গণপরিবহন ব্যবস্থায় নিয়ম-শৃঙ্খলা নেই। নিয়ম-শৃঙ্খলা বলতে ব্যবসায়িক নিয়ম থাকতে হবে, আর্থিক নিয়ম থাকতে হবে। এমনকি প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামো থাকতে হবে। আমাদের এখানে সেটা নেই। পরিবহন ব্যবস্থাকে একটি বিজনেস মডিউল দিতে হবে। সবাই যে যার মতো ব্যবসা করছে। সেখান থেকে সবাইকে এই মডিউলের বেতন নিয়ে আসতে হবে।

অনুষ্ঠান শেষে রিকশা মালিক ও চালকদের আন্দোলন সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে মেয়র বলেন, আমরা আগামীকাল রিকশাচালক ও মালিকদের নগর ভবনে ডেকেছি। আমরা তাদের সঙ্গে কথা বলতে চাই, তাদের সমস্যার কথা শুনতে চাই। আমরা তাদের বোঝাতে চাই যে নগরীর বৃহত্তর স্বার্থে এ ধরনের পদক্ষেপ নিতে হবে। ইতোমধ্যে নাগরিক সমাজ রিকশা বন্ধের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

নওয়াজের বিচার নিয়ে আরও দুটি গোপন ভিডিও ফাঁস করলেন মরিয়াম পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের দুর্নীতি মামলার বিচারকের আরও দুটি ভিডিও ফাঁস করেছেন নওয়াজকন্যা মরিয়াম। এর আগে গত শনিবার বিচারপতি আরশাদ মালিকের সঙ্গে এক ব্যক্তির কথোপকথনের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছিলেন তিনি।পাকিস্তানের প্রভাবশালী গণমাধ্যম ডনের খবরে বলা হয়, বুধবার টুইটারে পোস্ট করা করা ওই দুটি ভিডিওতে অ্যাকাউন্টিবিলিটি কোর্টের বিচারপতি আরশাদ মালিককে নাসির বাট নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে যেতে দেখা যায়। মোটরসাইকেল থেকে ধারণ করা ওই ভিডিও দুটির প্রথমটিতে কারও চেহারা স্পষ্ট নয়।

দ্বিতীয় ভিডিওটিতে মরিয়াম নওয়াজ দাবি করেন, নাসির বাট বিচারপতি আরশাদ মালিকের বাসভবনে প্রবেশ করেছেন। এবং তার সঙ্গে নওয়াজের বিচারের রায় নিয়ে কথা বলেছেন।ভিডিও দুটি শেয়ার করে মরিয়াম নওয়াজ বলেন, বিচারপতি আরশাদ মালিক আগের কথোপকথন অস্বীকার করে যে বক্তব্য দিয়েছেন, এ দুটি ভিডিওর মাধ্যমে তা মিথ্যা প্রমাণিত হলো। এর আগে গত শনিবার নওয়াজকন্যা মরিয়াম সংবাদ সম্মেলন করে দাবি করেন, তার পিতা নওয়াজ শরিফকে সাজানো মামলায় রায় দেয়া হয়েছে। ওই মামলার রায় আগে থেকেই প্রস্তুত ছিল বলে দাবি করেন তিনি।প্রমাণ হিসেবে ইসলামাবাদের অ্যাকাউন্টিবিলিটি কোর্টের বিচারপতি আরশাদ মালিক ও পিএমএল-এন সমর্থক নাসির বাটের কথোপকথনের একটি ভিডিও হাজির করেন মরিয়ম।

ওই কথোপকথনে বিচারপতি আরশাদ স্বীকার করেছেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজের বিরুদ্ধে রায় দেয়ার জন্য গোপন শক্তি তাকে ‘ব্ল্যাকমেইল ও জোর-জবরদস্তি’ করেছে।তবে ফাঁস হওয়া সেই ভিডিওকে ‘সাজানো’ উল্লেখ করে একে বিচার বিভাগের ওপর আক্রমণ আখ্যা দিয়েছে ইমরান খানের সরকার। আলাদা বিবৃতি দিয়ে বিচারপতি আরশাদ মালিক মরিয়ামের দেখানো ভিডিওটিকে ‘ভুয়া’ ও ‘সাজানো’ বলে দাবি করেছেন। নওয়াজের বিরুদ্ধে রায় ঘোষণার ক্ষেত্রে কোনো ধরনের চাপ ছিল না বলেও জানান তিনি। ১১ জুলাই ২০১৯, ০৩:১৪ PM

About admin

Check Also

মুসলিম রীতি মানেননি বলেই অপুকে তালাক শাকিবের!

শাকিব খানকে পেতে ধর্ম পরিবর্তন করে অপু বিশ্বাস হয়েছিলেন অপু ইসলাম খান। কিন্তু তাতেও শেষরক্ষা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *